আজকের সৌদি আরবের সেহরির শেষ সময়

আজকের সৌদি আরবের সেহরির শেষ সময় ২০২৩

আমাদের ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের ওয়েবসাইটের আজকের আর্টিকেলটি মূলত সৌদি আরবের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি নিয়ে লিখা হয়েছে। আপনি কি সৌদি আরবের সেহরির শেষ সময় সংগ্রহ করতে চাচ্ছেন অথবা কোন সময় ইফতার হবে এ বিষয়গুলো জানতে চাচ্ছেন? তাহলে আমি বলব আপনি ঠিক জায়গায় এসেছেন এবং এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনি সৌদি আরবের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

কেননা এখানে সৌদি আরবের সেহেরী ও ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কে খুবই সুন্দরভাবে আলোচনা করা হয়েছে এবং সঠিক সময়সূচি গুলো দেওয়া হয়েছে। আশা করি এখান থেকে আপনি খুব সহজে আপনার প্রয়োজনীয় সময় সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। আর এই আর্টিকেলটির দ্বারা উপকৃত হবেন। তাহলে আর দেরি না করে চলুন শুরু করা যাক। আর এই আর্টিকেলটি আপনি পড়ে ফেলুন এবং আপনার প্রয়োজনের সময়সূচী নিজের সংগ্রহে নিয়ে নিন।

সাধারণত সৌদি আরবের মানুষ মুসলমান ধর্মপরায়ণ। অর্থাৎ তারা মুসলিম ধর্মের অনুসারী। আর তারা নিজেদের সমস্ত কাজকর্মে ধর্মের দ্বারা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রভাবিত হয়। আর রমজান মাসে আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য অনেক বেশি ইবাদতে নিজেকে নিয়োজিত করে। কেননা রমজান মাস অন্যান্য মাসের তুলনায় অনেক ইবাদত পূর্ণ ও বরকতম একটি মাস। এই মাসে অন্যান্য মাসের চেয়ে বেশি আল্লাহর রহমত বর্ষিত হয় এবং আল্লাহ তা’আলা তার বান্দাকে এই মাসে ক্ষমা করে দেন। এজন্য প্রত্যেকটি মুসলিম ব্যক্তির উচিত রমজান মাসে আল্লাহ তাআলার ইবাদতের মাধ্যমে সময় অতিবাহিত করা এবং পূর্ববর্তী ভুল কাজের জন্য আল্লাহর কাছে অনেক বেশি ক্ষমাপ্রার্থনা করা। তাহলে আল্লাহ সে ব্যক্তির পূর্ববর্তী ভুলগুলো ক্ষমা করে দিতে পারেন এবং তার উপর রহমত বর্ষিত করতে পারেন।

তবে রমজান মাসে রোজা রাখার ক্ষেত্রে অবশ্যই সেহেরী ও ইফতারের সময়সূচির দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখা জরুরী। কারণ সঠিক সময় যদি সেহেরী না করা হয় এবং ইফতার না করা হয় তাহলে সঠিকভাবে রোজা রাখা সম্ভব হবে না। যেমন কোন ব্যক্তি যদি সেহরির সময় শেষ হওয়ার পরে খাবার গ্রহণ করে বা সেহরির খাবার খায় তাহলে তার রোজাটি হবে না। কারণ সেহরির পরে খাওয়ার কোন নিয়ম নেই। তবে কোন ব্যক্তি যদি দুর্ঘটনা বসতো ঘুম থেকে জাগা না পাই বা জেগে উঠতে না পারে তাহলে সে সঠিক নিয়তের সাথে সেহরির সময় শেষ হওয়ার পরেও রোজা রাখতে পারে।

সৌদি আরব জেদ্দা

Jeddah 1

সৌদি আরব দাম্মাম

Dammam 1

সৌদি আরব রিয়াদ

Riyadh 1

সৌদি আরব মক্কা

Makka 1

এক্ষেত্রে তার রোজাটি গ্রহণযোগ্য হতে পারে। কিন্তু ইচ্ছাকৃতভাবে কোন ব্যক্তি যদি সেহরির সময় শেষ হওয়ার পরেও খাবার খায় বা খাবার গ্রহণ করে তাহলে তার রোজাটি রাখা হবে না। এই বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে। তেমনি ভাবে কোন ব্যক্তি যদি ইফতারের সময় হওয়ার আগেই খাবার গ্রহণ করে তাহলে তার রোজাটি ভেঙ্গে যাবে এবং তার শুধুমাত্র উপোস করে থাকায় হবে। এই বিষয়টি খেয়াল রেখে সঠিক সময়ে সেহরি ও ইফতার করা খুবই জরুরী।

এজন্য রমজান মাসে দেখা যায় যে মুসলমান ব্যক্তিরা সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি গুলো সংগ্রহ করার জন্য বিভিন্ন জায়গায় খুঁজতে থাকে। আবার অনেক সময় অনলাইনে সার্চ করে। মূলত তারা যেন খুব সহজেই সেহেরী ও ইফতারের সময় গুলো পেয়ে যায় এজন্যই আমাদের আর্টিকেলগুলো লেখা হয়েছে। তবে এই আর্টিকেলটিতে সৌদি আরবের সময়সূচি দেওয়া হয়েছে। আর আমাদের অন্যান্য আর্টিকেলগুলোতে বিভিন্ন দেশের ও শহরের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি গুলো দেওয়া হয়েছে।

আপনি চাইলে খুব সহজেই আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার মত বিভিন্ন দেশের এবং বিভিন্ন শহরের আলাদা সেহরি ও ইফতারের সঠিক সময়সূচি সংগ্রহ করে নিতে পারবেন বলে আশা করছি। আর এজন্য আপনাকে আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতে হবে। আপনি যদি আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করেন তাহলে আপনার নিজ দেশের বা শহরের সেহরি ও ইফতারের সঠিক সময়সূচীটি সংগ্রহ করে নিতে পারবেন খুব সহজেই বলে আশা করছি।