ইফতারের সময়সূচি জেদ্দা

ইফতারের সময়সূচি ২০২৩ জেদ্দা

সৌদি আরবের জেদ্দাতে যারা বসবাস করেন তাদের উদ্দেশ্যে আমাদের ওয়েবসাইটে ইফতারের সময়সূচি সঠিকভাবে জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হলো। যেহেতু সেখানে বিভিন্ন মসজিদে ইফতারের আয়োজন বড় পরিসরে করানো হয়ে থাকে সেহেতু আপনারা যদি এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করতে চান তাহলে সঠিক সময়সূচি জেনে নিয়ে সেখানে অংশগ্রহণ করাটাই সবচাইতে ভালো হবে এবং এক্ষেত্রে আপনার জন্য সময়ের কোন কমতি থাকবে না।

মাহে রমজান মাস উপলক্ষে আমরা আপনাদের মাঝে সবসময় সঠিক তথ্য উপস্থাপন করার চেষ্টা করছি এবং আপনারা যখন আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে থাকছেন তখন এখান থেকে এগুলো দেখলেই বুঝতে পারছেন কখন কখন ইফতারের সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে এবং কখন কখন সেহরির সময়সূচী আপনাদের জন্য কর্তৃপক্ষ নির্ধারণ করেছেন। সঠিক সময়সূচি জানতে আপনারা নিচের দিকে চলে যাবেন এবং সেখান থেকে ইফতারের সময়সূচি জেনে নিয়ে আপনারা নিজেরা জানবেন এবং অন্যদের মাঝেও শেয়ার করলে তারাও জানার সুযোগ পাবে।

পবিত্র মাহে রমজান মাস আমাদের মাঝে চলে এসেছে এবং এই মাসের বদৌলতে আমরা চাইলে আল্লাহ পাকের কাছে দোয়া কবুলের মাধ্যমে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের বিভিন্ন চাওয়া পাওয়া গুলো পূরণ করে নিতে পারি। যেহেতু মাহে রমজান মাসে কুরআন মাজীদ নাযিল হয়েছে সেহেতু এই মাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং আমরা এই মাস অবশ্যই এমন ভাবে পালন করব যাতে করে লাইলাতুল কদরের অনুসন্ধান করতে পারি এবং করার মধ্য দিয়ে আল্লাহ পাকের একেবারে নৈকট্য হাসিল করতে পারি।

তাই আপনারা যখন ইফতারের সময়সূচি জানবেন তখন সেটা আপনাদের জন্য অনেক ভালো হবে এবং প্রত্যেকদিনের সূর্যাস্তের অবস্থা একরকম না হওয়ার কারণে এই সময়সূচী এক মিনিট অথবা দুই মিনিট অপেক্ষা সময় করে পরিবর্তন হচ্ছে। আপনারা ইফতারের সময়সূচি দেখলে বুঝতে পারবেন এখানে প্রথম দিনের রমজানের ইফতারের সময়সূচির সঙ্গে শেষ দিনের রমজানের ইফতারের সময়সূচির কোন মিল থাকবে না।

তাই আপনাদের কথা ভেবে এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা এই তথ্যগুলো উপস্থাপন করলাম বলে আপনার এগুলো বুঝতে সক্ষম হচ্ছেন এবং আপনারা যেমন নিজেরা বুঝতে পারছেন সেহেতু সকলকে বুঝিয়ে দিলে এই সময়সূচী সম্পর্কে অবগত হতে পারবে। তাই আপনারা মাহে রমজান মাসের প্রত্যেকটি ইবাদত সঠিকভাবে করার জন্য মনেপ্রাণে নিয়ত করবেন যাতে করে অনেক কষ্ট হলেও আপনি প্রত্যেকটি ইবাদতে নিজেকে অংশগ্রহণ করাতে পারেন এবং আল্লাহ পাকের নৈকট হাসিল করতে পারেন।

Jeddah 1

প্রকৃতপক্ষে মাহে রমজান মাসে এতটাই গুরুত্বপূর্ণ মাস এটা যদি আপনি ছেড়ে দেন অথবা এখানকার ইবাদত করার জন্য যদি আপনার ভেতরে অলসতা কাজ করে তাহলে আপনি অনেক ভুল করবেন। যে আল্লাহপাক আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন এবং এই পৃথিবীর বুকে বিচরণ করার জন্য সকল ধরনের নিয়ামত প্রস্তুত করে রেখেছেন সেই আল্লাহ পাকের উদ্দেশ্যে আমরা তাঁর অনুগ্রহ লাভ করার জন্য এইটুকু পরিশ্রম করতেই পারি।

মাহে রমজান মাসের প্রত্যেকটি ইবাদত করার মধ্য দিয়ে আমরা এখান থেকে বিভিন্ন ধরনের শিক্ষার্জন করতে পারি এবং অতীত জীবনের সকল পাপ করেছে সেগুলোর জন্য যদি আল্লাহ পাকের কাছে দুই হাত তুলে ক্ষমা চায় তাহলে তিনি অবশ্যই আমাদের ক্ষমা করবেন এবং আমাদের জীবনকে সুন্দরভাবে পরিচালনা করার ক্ষেত্রে সাহায্য করবেন।