গাজীপুর জেলার রমজানের সময় সূচি 2023


রমজান মাসের সময়সূচি আমরা বিভিন্ন জেলার প্রদান করে থাকলো এখন পর্যন্ত গাজীপুর জেলার প্রদান করেনি বলে আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে শুধু আপনাদের উদ্দেশ্যে গাজীপুর জেলা রমজানের সময়সূচী প্রদান করা হবে। মাহে রমজান মাস পালন করার ক্ষেত্রে আপনারা যারা গাজীপুর জেলায় বসবাস করছেন তাদের অবশ্যই জেলার অবস্থান অনুযায়ী সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের উপর নির্ভর করে ইসলামিক ফাউন্ডেশন যে সময়সূচী প্রদান করেছে তা অবশ্যই জেনে নিতে হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রত্যেক বছর যে সময় মাহে রমজান মাস পালন করা হয় সে সময় সূর্যোদয় এবং সূর্যাস্তের উপর নির্ভর করে যে সময়সূচী প্রদান করে সে অনুযায়ী সারা বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় মাহে রমজান মাসের সময়সূচি গুলো মেনে নিয়ে সেহরি ও ইফতারি সম্পন্ন করা হয়ে থাকে।

এই সেই ধারাবাহিকতা অনুসরণ করে গাজীপুর জেলার ব্যক্তিরাও অবশ্যই ঢাকা জেলার সঙ্গে তাদের জেলার যে সময়ের পার্থক্য রয়েছে সে সময়ের পার্থক্য অনুযায়ী সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করবেন বলে মনে করি। মাহে রমজান মাসের এই ইবাদত আপনারা অবশ্যই সঠিকভাবে পালন করার চেষ্টা করবেন যাতে করে আপনারাই ইবাদত অংশগ্রহণ করে মাহে রমজান মাসের যে ফজিলত রয়েছে সেগুলো সংগ্রহ করতে পারেন।

তাছাড়া আপনি যেহেতু প্রাপ্তবয়স্ক এবং আপনার শারীরিক সুস্থ রয়েছে সেহেতু গুলো যদি আপনি না করে থাকেন তাহলে আল্লাহ পাক আপনার প্রতি অসন্তুষ্ট হবেন এবং আল্লাহ পাক আপনার এই কাজের জন্য অবশ্যই বেজার হবেন। তাই আমাদের এই পৃথিবীতে জন্মগ্রহণ থেকে শুরু করে পরবর্তীতে জীবনকে পরিচালনা করার জন্য যে সকল নিয়ামত আমরা গ্রহণ করছি এবং যার মাধ্যমে আমরা বেঁচে আছি সেগুলো অবশ্যই আল্লাহপাকের প্রদান করে এবং এই কৃতজ্ঞতার থেকে অবশ্যই আমাদেরকে ইবাদত করা উচিত।Gazipur 1

আপনি যদি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন তাহলে এটা আপনার জন্য কঠিন কোন বিষয় নয় এবং পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ার মাধ্যমে আল্লাহ পাকের কাছে আপনি দুই হাত তুলে যখন আপনার মনের চাওয়া পাওয়া গুলো অথবা মনের কষ্টগুলো তুলে ধরবেন তখন অবশ্যই তিনি আপনাকে সাহায্য করবেন। তাছাড়া মাহে রমজান মাসে আপনারা যদি নফল ইবাদত বেশি বেশি করেন অথবা যে কোন ধরনের ইবাদত করে থাকেন তাহলে অন্যান্য সময়ের চাইতে এই রমজান মাসে আপনাদেরকে 70 গুণ বেশি সওয়াব প্রদান করা হবে।

তাই একজন ধর্মপ্রাণ মুসলমান সবসময়ই তার এই ইবাদতগুলোকে মনে করে থাকে এবং এই ইবাদত করার ক্ষেত্রে নিজেদেরকে সর্বোচ্চ পরিমাণ ত্যাগ স্বীকার এবং পরিশ্রম করে থাকে। আপনারা যারা সেহরিতে ঘুম থেকে উঠে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সেহরি করতে ব্যর্থ হয়ে থাকেন অথবা প্রত্যেকে দেরী করে ফেলেন তাদের উদ্দেশ্যে আমাদের ওয়েবসাইটে এই পোস্টের মাধ্যমে সেহরির শেষ সময় জানিয়ে দেওয়া হলে বলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আপনারা এগুলো সম্পন্ন করার অবশ্যই অবশ্যই চেষ্টা করবেন। আর যদি আপনাদের ইফতারের সময় জানার প্রয়োজন হয়ে থাকে তাহলে আসরের নামাজের পর থেকে প্রস্তুতি গ্রহণ করার পাশাপাশি বাইরে অবস্থান করলে অবশ্যই নির্দিষ্ট সময় জেনে নিয়ে নির্দিষ্ট স্থানে ইফতারি করে নিতে পারেন অথবা এই সময়সূচী জেনে নিয়ে আপনারা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেন।