Assignment

অষ্টম শ্রেণী আইসিটি অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২০ – তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এসাইনমেন্ট

বর্তমান সময়ে এক আতঙ্কের নাম করোনা ভাইরাস। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে সর্বত্র এর প্রভাব ছড়িয়ে পড়েছে। তাই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বর্তমানে স্থগিত অবস্থায় রয়েছে। শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ব্যবস্থা চালিয়ে নেওয়ার উদ্যোগে দেশের প্রত্যেকটি স্কুলে এসাইনমেন্ট এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এসাইনমেন্ট এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সক্রিয়তা বাড়িয়ে দেয়ার জন্য আমরা সাধুবাদ জানাই।

কিন্তু শিক্ষার্থীদের অভিজ্ঞতা না থাকার কারণে অ্যাসাইনমেন্ট একটি দুর্বোধ্য বিষয় হয়ে উঠেছে। তাই আমাদের এই ওয়েবসাইটে শিক্ষার্থীদের লক্ষ্যে বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক এসাইনমেন্ট তৈরি ব্যবস্থা করছি এবং করে যাচ্ছি। আমাদের ওয়েবসাইটের নিয়মিত ভিজিট করার মাধ্যমে আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত বস্তু পেয়ে যাবেন। নিচে অষ্টম শ্রেণির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হল।

বর্তমানে তথ্য ও প্রযুক্তির যুগে পৃথিবীর প্রত্যেকটি মানুষ বেশ সচল হয়ে উঠেছে। এখন মানুষ আর আটটা ছয়টা অফিস করে না। ঘরে বসেই যে যার নিত্য প্রয়োজনীয় কাজগুলো করে নেয়। অফিশিয়াল কাজ থেকে শুরু করে ঘরের কেনাকাটা পর্যন্ত এখন মানুষ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ফলে ঘরে বসেই করতে পারে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিতে কর্মসংস্থান এক নতুন আবিষ্কারের নাম।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির উন্নতির ফলে মানুষ এখন অনলাইনের মাধ্যমে নিজেদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে নিচ্ছে। অনলাইনের বিভিন্ন ক্যারিয়ারমূলক কাজের মাধ্যমে মানুষ বিভিন্ন ধরনের আয় করে থাকে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ফলে এখন যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশ সহজ হয়ে উঠেছে। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে পৃথিবীর এক প্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে সহজেই একজন আরেকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে।

ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন এনেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি। এখন দেশের প্রত্যেকটি পণ্য অনলাইনের মাধ্যমে অ্যাডভার্টাইজ করে সারাদেশে কুরিয়ারের মাধ্যমে বিক্রি করা সম্ভব হয়েছে। কোন একটি জিনিসের প্রয়োজন হলেও আমরা ঘরে থেকেই সে জিনিসটি অর্ডার করতে পারি এবং পেতে পারি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ফলে। সরকারি বিভিন্ন কার্যক্রম এখন সহজতর হয়ে উঠেছে।

মানুষ সহজেই সরকারি বিভিন্ন তথ্যাবলী ঘরে বসেই পেতে পারে। সরকার অনুমতি পত্র বা কোন কিছু পরিবর্তন করলে তা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সাধারণ জনগণকে জানার সুযোগ দিয়ে দিচ্ছে। এর ফলে সাধারণ জনগণ প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কা কমে যাচ্ছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির উন্নতির ফলে চিকিৎসা ব্যবস্থায় বেশ পরিবর্তন এসেছে। মানুষ এখন কোনো অসুখে ভুগছে না। রোগের ডায়াগনস্টিক করে কম্পিউটারের মাধ্যমে নির্ণয় করছে এবং সঠিক সেবা নিতে পারছে।

গবেষণা জার্নাল এখন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ফলে ইন্টারনেটে সার্চ দিলে পাওয়া যায়। একজন গবেষক এর জন্য ইন্টারনেট বন্ধুসুলভ সাহায্যকারী একটি তথ্য জানতে হলে ইন্টারনেটে এক ক্লিকেই আমরা তা সহজেই জানতে পারি।
কম্পিউটারে কম্পিউটার নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার মাধ্যমে এসব কিছু এখন সম্ভব হয়েছে।

কম্পিউটার নেটওয়ার্কের জন্য আমরা যে মাধ্যম সংযুক্ত করে তার মধ্যে রয়েছে মিডিয়া, এডাপ্টার, রিসোর্স প্রটোকল ইত্যাদি। বিভিন্ন সিস্টেমের মাধ্যমে আমরা সহজেই এলাকাভিত্তিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারি৷ আর তার জন্য সাহায্য করছে পার্সোনাল এরিয়া নেটওয়ার্ক, লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক, মিউনিসিপালিটি এরিয়া নেটওয়ার্ক ইত্যাদি। তাই তথ্য-ও-যোগাযোগ-প্রযুক্তি মানব জীবনে আমূল পরিবর্তনের মাধ্যম দিয়ে সুন্দর সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে।

Back to top button
Close